কেশবপুরে মুখে মাস্ক না থাকায় ভ্রাম্যমান আদালতে ৩০ ব্যক্তির অর্থদন্ড

81

আবু হুরাইরা রাসেল, যশোর জেলা প্রতিনিধিঃ

নো মাস্ক, নো সার্ভিস-এই নির্দেশনা পালনে কঠোর অবস্থানে কেশবপুরের প্রশাসন। করোনা ভাইরাস বিস্তার রোধে পুনরায় মাঠে নেমেছে উপজেলা প্রশাসন। মঙ্গলবার সকালে কেশবপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার নূসরাত জাহান ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) ইরুফা সুলতানা কেশবপুর ও পাঁজিয়া বাজারসহ উপজেলার বিভিন্ন জায়গায় যৌথ অভিযান চালায়।

এসময় মুখে মাস্ক না থাকায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এর ক্ষমতাবলে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে ৩০ ব্যক্তিকে অর্থদন্ড প্রদান করেন। এর মধ্যে সরকারী খালে পাটা দেওয়ার অভিযোগে কন্দর্পপুর গ্রামের কামরুল বিশ্বাসকে ৩ হাজার টাকা অর্থদন্ড দেওয়া হয়।

মাস্কের জন্য অর্থদন্ড ব্যক্তিরা হলেন- খুলনার সুমন রায় ৫শ,কেশবপুর উপজেলার কানাইডাঙ্গা গ্রামের ইসমাঈল ৫শ, মাদারডাঙ্গা গ্রামের সুলভ দেবনাথ ৫শ,কোমরপোল গ্রামের কল্যান দাস ৫শ, নারায়নপুর গ্রামের কৃষ্ণনাথ ১শ, বালিয়াডাঙ্গা গ্রামের রমেশ চন্দ্র ৩শ, হৃদ গ্রামের হযরত আলী ৫শ, বালিয়াডাঙ্গা গ্রামের আবু মুসা ৫শ, নারায়নপুর গ্রামের জহুরুল ইসলাম ৫শ, কেশবপুর শহরের কৃষ্ণ মন্ডল ৫শ, কানাইডাঙ্গা গ্রামের খাইরুল ইসলাম ২শ, রমজান খাঁ ৫শ, খতিয়াখালি গ্রামের মিজানুর রহমান ৫শ, সাবদিয়া গ্রামের মোহন ৫শ, মূল গ্রামের বিকাশ চন্দ্র ১ হাজার, বাঁকা বর্শি গ্রামের লাকি খাতুন ৫শ, রামচন্দ্রপুর গ্রামের শামিম রেজা ৫শ, কেশবপুর শহরের শুসান্ত সাহা ৫শ, কন্দর্পপুর গ্রামের রফিকুল ইসলাম ৫শ, কোমরপোল গ্রামের অমিত দাস ৫শ, মনিরামপুর উপজেলার রসুলপুর গ্রামের সোবান ৫শ, কুষ্টিয়া জেলার ফুলসারা গ্রামের শরিফুল ইসলাম ৫শ ও পাটকেলঘাটার মাহমুদ শেখ ৫শসহ মোট ৩০ জন।

এদের কাছ থেকে নগদ ১৬ হাজার ৩শ টাকা জরিমানা আদায় করা হয় বলে জানা গেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here