ঘুমের ঔষধ খাইয়ে ১৫ দিন ধরে ছাত্রকে বলাৎকারঃ মাদ্রাসা শিক্ষক আটক

261

‘শিক্ষক আমাকে ১৫ দিন ধরে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে বলাৎকার করতো। অনেক সময় বাসায় চলে যেতে চাইলে, ভয়-ভীতি দেখাত। এই বিষয়ে কাউকে কিছু বলতে মানাও করত।’

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের একটি মাদ্রাসা শিক্ষকের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ তুলে এগারো বছর বয়সের এক ছাত্র আদালতে জবানবন্দি দিয়েছে।
সোমবার (০৫ অক্টোবর) বিকেলে নারায়ণগঞ্জের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. কাউছার আলমের আদালতে সেই ছাত্রের ২২ ধারায় জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়।
আদালত পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) আজমল হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, জবানবন্দি গ্রহণের পাশাপাশি একই দিন অভিযুক্ত শিক্ষককে আদালতে হাজির করা হয়।
অভিযুক্ত ওই শিক্ষকের নাম শহিদুল্লাহ (৪৫)। তিনি চাঁদপুর জেলার উত্তর ইচলী এলাকার মৃত আব্দুস সাত্তার বব্দুশী’র ছেলে এবং সিদ্ধিরগঞ্জের মিজমিজি পাইনাদী নতুন মহল্লা এলাকায় অবস্থিত মারকাযুল কোরআন কওমী মাদরাসার শিক্ষক। এর আগে বলাৎকারের শিকার শিশু ছাত্রের পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে ৪ অক্টোবর রাতে মারকাযুল কোরআন কওমী মাদরাসা ও লিল্লাহ বোডিং থেকে শিক্ষক শহিদুল্লাহকে পুলিশ গ্রেফতার করে।

এ ঘটনায় সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের একটি মামলা দায়ের করেছেন শিশুটির ফুফু ফরিদা আক্তার।
বলাৎকারের শিকার ১১ বছরের মাদরাসা ছাত্রের পরিবার জানায়, গত ১৫ দিন ধরে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে মাদরাসার শিক্ষক শহিদুল্লাহ ছাত্রটিকে বলাৎকার করে আসছে। ব্যথা কমাতে ছাত্রটিকে ব্যথানাশক ওষুধও সেবন করাতেন ওই শিক্ষক। ছাত্রটি মাদরাসা থেকে বাসায় চলে যেতে চাইলে তাকে নানাভাবে ভয়-ভীতি দেখাতেন। শেষবার শিশুটি বলাৎকারের শিকার হয় গত ৩০ সেপ্টেম্বর সকাল সাড়ে ১০ টার সময়।
পরে সুযোগ পেয়ে ওই শিশু ছাত্র মাদরাসা থেকে পালিয়ে বাসায় গিয়ে অভিভাবকদের বিষয়টি জানালে থানায় লিখিত অভিযোগ দেয়া হয়।
এ ব্যাপারে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কামরুল ফারুক সময় নিউজকে বলেন, ছাত্রের পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ পেয়ে আমরা অভিযুক্ত শিক্ষক্কে গ্রেফতার করি। জিজ্ঞাসাবাদে তিনি বলাৎকারের অভিযোগ স্বীকারও করেছেন।
ওসি আরো জানান, আমরা শিক্ষকের বিরুদ্ধে মামলা গ্রহণ করে সোমবার আদালতে পাঠিয়েছিলাম। পরে আদালতের নির্দেশে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়। পাশাপাশি আদালতে ওই ছাত্রের জবানবন্দিও রেকর্ড করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here