থৈথৈ বৃষ্টি

79

একটু ছুঁতে তোমার গাত্রে সুড়সুড়ি হতো,

অথচ সেদিন পাথালিকোলা করে তুললেম আমার চিলেকোঠায়।
লাজওয়াব, টুঁশব্দও করলেনা!
সারাশরীর লেপ্টে বিনাবাক্যে সমর্পিত তুমি,
ভেজা কাপড়ের গন্ধ শুঁকে ছাদের বনসাইটিও প্রকম্পিত।
বুদবুদ করে ধমনির অতলান্তে নেচে ওঠে পোড়া আত্মা,
সজোরে আমার পাঁজরে পুঁতে দিয়েছো জীবননাশক হাইড্রোবোমা।
আপ্তবাক্য ছুঁড়েছ বেআব্রু ভঙ্গিমায়,
অজাচারে মৌনভাব, প্রারম্ভ করলে একটি অলিখিত জীবনবীমা।
চেঁচিয়ে কেঁদে উৎসব করেছি তোমার নিস্প্রভ চাহনি,
নিগ্রহ-বলে বারংবার ছেয়েছি তোমায়,
এখনো বলছি ভীষণ ভালোবাসি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here