নতুন কমিটিতে অসন্তোষ, পাল্টা কমিটির চিন্তা আহমদ শফির অনুসারীদের

93

সব জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে হেফাজতে ইসলাম এখন জুনায়েদ বাবু নগরীর হাতে। পাল্টা কমিটি গঠনের পথেই হাঁটছেন হেফাজতে ইসলামের পদবঞ্চিতরা। ঘোষিত কমিটিকে প্রত্যাখানও করেছেন তারা। তবে হেফাজত নেতাদের একাংশ বলছেন, জুনায়েদ বাবু নগরীর নেতৃত্বে এগিয়ে যাবে হেফাজত।

রোববার মাওলানা জুনায়েদ বাবুনগরীকে আমির ও নুর হোসাইন কাসেমীকে মহাসচিব করে ১৫১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি ঘোষণা করে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ। দেশের ৬৪ জেলার হেফাজতের প্রতিনিধিদের উপস্থিতে এই কমিটি গঠন হয়েছে বলে জানালেন নতুন দায়িত্ব পাওয়া সাংগঠনিক সম্পাদক আজিজুল ইসলাম ইসলামীবাদী।

ঘোষিত কমিটি প্রত্যাখান করেছেন আল্লামা শফীর অনুসারীরা। তাদের অভিযোগ, নতুন কমিটিতে বিলুপ্ত কমিটির নায়েবে আমির মুফতি মুহাম্মদ ওয়াক্কাস, যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মাঈনুদ্দীন রুহী ও মুফতি ফয়জুল্লাহ ও প্রয়াত আল্লামা শাহ আহমদ শফীর ছেলে মাওলানা আনাস মাদানীসহ প্রায় অর্ধশত শীর্ষ নেতা বাদ পড়েছেন। নবগঠিত কমিটিতে যোগ্যদের মূল্যায়ন হয়নি বলে অভিযোগ করেছেন মাওলানা মাঈনুদ্দীন রুহী, আহমদ শফীর অনুসারীরা।

আর কমিঠি গঠন নিয়ে শাহ আহমদ শফীর অনুসারীদের বিরোধীতাকে আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্র বলে মনে করছেন আজিজুল ইসলাম ইসলামীবাদী।আগামী শনিবার আহমদ শফীর স্মরণ সভা হবে। ওই পদবঞ্চিতরা পরবর্তী পদক্ষেপ নিবেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here