টেকনাফে রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের গুলিতে স্থানীয় যুবক নিহত

65

ডেস্ক রিপোর্টঃ

কক্সবাজারের টেকনাফে রোহিঙ্গা ডাকাতের গুলিতে আবদুর শুক্কুর (৩০) নামের স্থানীয় এক ব্যক্তি নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

আজ বৃহস্পতিবার (৫ নভেম্বর) দুপুর ১২ টার দিকে টেকনাফের শালবন রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত আবদুর শুক্কুর টেকনাফের হ্নীলা ইউনিয়নের নয়াপাড়া গ্রামের আবুল বাশারের ছেলে।

বিষয়টি নিশ্চত করে টেকনাফের নয়াপাড়া এপিবিএন এর পুলিশ চৌকির (ইনচার্জ) ইন্সপেক্টর রাকিবুল ইসলাম বলেন, বৃহস্পতিবার সকাল ১১ টার দিকে টেকনাফের শালবন রোহিঙ্গা ক্যাম্পের দিকে যাওয়ার সময় রোহিঙ্গা জাকিরের নেতৃত্বে একদল ডাকাত শুক্কুরকে ধাওয়া করে। এসময় পালানোর চেষ্টা করলে শুক্কুরকে গুলি করে ডাকাত সদস্যরা । এতে গুলিবিদ্ধ হয়ে তিনি মারা যান। এ ঘটনায় পুলিশ অভিযান অব্যাহত রেখেছে।

নিহতের চাচা আবুল হাশিম দাবি করেন, সকালে জাকিরের নেতৃত্বে এক দল ডাকাত অস্ত্র নিয়ে তার বাড়িতে ঢুকে কোনও কথা না বলে শুক্কুরকে টেনে-হিঁচড়ে ঘর থেকে বের করে। পরে তারা শুক্কুরকে তিনটি গুলি করে ক্যাম্পের দিকে চলে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই সে মারা যায়।

রোহিঙ্গারা জানায়, জাকিরের নেতৃত্বে একদল ডাকাত ক্যাম্পের পুরো মানুষদের জিম্মি করে রেখেছে। ভয়ে ক্যাম্পের লোকজন মুখ খুলছেনা। পাহাড়ি এলাকায় রোহিঙ্গা শরণার্থীশিবির হওয়ায় এখানে চিহ্নিত কিছু রোহিঙ্গা ডাকাত ও সন্ত্রাসী অবস্থান করছে। এরা বিভিন্ন সময় লোকজনকে ইয়াবা চোরাচালান, ছিনতাই, অবৈধ অস্ত্রের মজুত, মুক্তিপণ ইত্যাদি অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে যুক্ত করছে বলেও জানায় তারা।

এ বিষয়ে টেকনাফ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাফিজুর রহমান বলেন, রোহিঙ্গা ডাকাতের গুলিতে স্থানীয় এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। তবে কি কারণে এ ঘটনা ঘটেছে সেটা জানা যায়নি। এ বিষয়ে পুলিশ কাজ করছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here